করোনায় মারা গেলেন আরো পাঁচজন, শনাক্ত ৪১৮

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণে আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন শনাক্ত হয়েছে ৪১৮ জন। এ নিয়ে দেশে করোনায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৪৫ জনের। আর সব মিলিয়ে শনাক্ত হয়েছে পাঁচ হাজার ৪১৬ জন।

আজ রবিবার (২৬ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে সরকারি বুলেটিনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বুলেটিন প্রকাশে অংশ নেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

ডা. নাসিমা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৪৫ জনের। মৃত্যুবরণকারীরা তিনজন পুরুষ এবং দুইজন নারী। এঁদের চারজনই ঢাকা শহরের। বাকি একজন ঢাকার অদূরে দোহারের। মৃতদের মধ্যে একজন শিশুও রয়েছে, তার বয়স ১০ বছরের নিচে। বাকি চারজনের বয়স ষাটোর্ধ একজন এবং ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে তিনজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৯ জন সুস্থ হয়েছেন এবং এ নিয়ে এ পর্যন্ত ১২২ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানান নাসিমা। 

বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে তিন হাজার ৬৮০টি। আর পরীক্ষা করা হয়েছে তিন হাজার ৪৭৬টি। এর মধ্যে করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে ৪১৮ জনকে। এ নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ৪১৬ জন। আর এ পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৬ হাজার ৫৮৯টি।

আইসোলেশন প্রসঙ্গে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে আরো ৭৫ জনকে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে এক হাজার ১৬৪ জনকে। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন ৪৪ জন এবং এ পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন ৭০৯ জন। মুক্তরা বিভিন্ন হাসপাতাল ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ছিলেন বলে জানানো হয়েছে। 

কোয়ারেন্টিন প্রসঙ্গেও তথ্য দেওয়া হয় বুলেটিনে। বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে গেছেন দুই হাজার ৮৯১ জন। আর এ পর্যন্ত মোট হোম এবং কোয়ারেন্টিনে গেছেন এক লাখ ৭৭ হাজার ৩১ জন। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় মুক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৯৬৩ জন। আর এ পর্যন্ত মুক্ত হয়েছেন ৯৭ হাজার ১৩২ জন। বর্তমানে ৭৯ হাজার ৮৯৯ জন হোম এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন। 

গত ২৪ ঘণ্টায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইনে ৭৭ হাজার ৯০১ জনকে স্বাস্থ্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এবং এ নিয়ে এ পর্যন্ত ৩৩ লাখ ৯১ হাজার ১১ জনকে এই স্বাস্থ্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে বুলেটিনে জানানো হয়েছে।

সুত্রঃ কালের কণ্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

 

ফেইসবুকে আমরা